আন্তর্জাতিক খবর 12/6/2019 INTERNATIONAL News । আজকের আন্তর্জাতিক সংবাদ world news । news 24

About the author

Comments

  1. শুধুমাত্র আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা যদি শতভাগ নিশ্চিত করা যায় তবে মধ্যপ্রাচ্যে আমেরিকার ও তাদের মিত্র ইজরায়েল ও সৌদির যুদ্ধ করার সখ চীরতরে মিটে ষাবে !

  2. আমারা দোয়া করে মুসলিম প্রধান কমপক্ষে ১০-১৫টি দেশ রাশিয়া থেকে এস ৪০০ আকাশ প্রতিরক্খা ব্যবস্থা ক্রয় করুক এবং সাথে সাথে রাশিয়ার সাথে যৌথ ভাবে এস ৫০০ প্রতিরক্খা ব্যবসথা নির্মান করুক। যাথে করে ইজরায়েল, আমেরিকা ও ইন্ডিয়ার দালাল অন্যান্য দেশ গুলি মুসলমানদের দেশ দখল ও নির্যাতন করতে পারবে না।আর এতে তাদের মোড়লগীরি আর থাকবেনা।এবং বিশ্বে শান্তি নস্ট হবে না।তাহলে আমরা তুরস্ক +ইরান+পাকিস্তান +রাশিয়া +চীন কে একটি সামরিক ও অর্থনৈতিক জোট হিসেবে দেখতে চাই। তাহলেই ইবলিশ শয়তানের নাতিপুতি আমেরিকা +ইসরায়েল +দুবাই +সৌদি ও ইউরোপ +ইন্ডিয়া +মায়ানমার এই সব দেশের পতন হবে।তবে সৌদির ও দুবাইয়ের সরকার গুলোর পতন চাই, এই সব দেশের জনগনের ক্ষতি হোক তা চাই না এবং সামরিক ও অর্থনৈতিক ক্ষতি হোক আমরা চাই না।শুধু এই দুই দেশের মুসলিম নামধারী মোনাফেক ইহুদি, খ্রিস্টানের দালাল সরকার গুলোর পতন চাই ও কঠিন শাস্তি চাই। সারা বিশ্বের মুসলিম নির্যাতন হইতেছে প্রায় সব দেশে বড় দুঃখের বিষয় হলো তারা একটা কথা ও বলে না উল্টো মুসলমানদের পক্ষে না গিয়ে ঐ জালিম সরকার গুলোর পক্ষে কথা বলে। তাদের শুধু দরকার নারী আর ক্ষমতা আর বিলাশিতা জীবন। সারা বিশ্বের মুসলিম ধংস হয়ে যাক এই সব মুসলিম সরকার নামের কুকুর গুলির তাতে কিছু যায় আসে না। তারা এমন কিছু সিদ্ধান্ত নেয় যে সিদ্ধান্ত শয়তান পর্যন্ত নেয় না।সৌদি মধ্যে কোন আলেম যদি হক কথা বলে ও ফিলিস্তিনের নির্যাতিত মুসলিমদের পক্ষে কথা বলে এবং ইজরায়েল, আমেরিকার অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে সৌদি আরবের কুকুর নামের সরকার গুলি ঐই সব বড় আলেমদেরকে মৃত্যুদন্ড দিতেছে তাদেরকে জেলে নির্যাতন করে এর পরে তারা মেরে ফেলতেছে।

  3. তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্র উভয়েই ন্যাটো জোটের সদস্য আর ন্যাটো জোটভুক্ত দেশগুলো নিজেদের মধ্যে যুদ্ধ না করার ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ অতএব তাদের মধ্যে কোনদিন যুদ্ধ হবেনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *